Sunday, April 14, 2024
Homeক্রাইমবর্ধমানের তেঁতুলতলা বাজার থেকে ১ বাংলাদেশী প্রেমিকা সহ প্রেমিককে গ্রেপ্তার করল পুলিশ

বর্ধমানের তেঁতুলতলা বাজার থেকে ১ বাংলাদেশী প্রেমিকা সহ প্রেমিককে গ্রেপ্তার করল পুলিশ

- Advertisement -

টিএসপি বাংলা ওয়েবডেস্ক : ফেসবুকে বন্ধুত্ব, পরে সেই বন্ধুত্বই গড়ায় প্রেমে। তারপর প্রেমিকের টানে সুদূর বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জ জেলার এনায়েতনগর থেকে কাঁটাতারের বেড়া পেরিয়ে বর্ধমানে চলে আসে প্রেমিকা। সম্পন্ন হয় বিবাহ, দিব্যি সংসারও করছিল। কিন্ত তাতেও শেষ রক্ষা হলনা। ন্যাশনাল অ্যান্টি ট্রাফিকিং কমিটির চেয়ারম্যানের করা অভিযোগের ভিত্তিতে প্রেমিক-প্রেমিকাকে গ্রেফতার করল বর্ধমান থানার পুলিশ। অভিযোগে জানানো হয়, নূরতাজ আখতার মিমনাদি আখতার নামে দুই বাংলাদেশি মহিলাকে ভুল বুঝিয়ে বর্ধমান শহরের তেঁতুলতলা বাজারলস্করদিঘি এলাকায় নিয়ে এসে আটকে রাখা হয়েছে।

- Advertisement -

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে ফেসবুকের মাধ্যমে বন্ধুত্ব ও প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। প্রেমের টানে গত ৩ মাস আগে বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জ জেলার এনায়েতনগর থেকে বনগাঁ বর্ডার হয়ে বর্ধমানে আসে ধৃত বাংলাদেশি নূরতাজ আখতার মিম (১৮)। দালালদের মাধ্যমে তাকে বনগাঁ বর্ডার পার করতে সাহায্য করে তার প্রেমিক বর্ধমান শহরের তেঁতুলতলা এলাকার বাসিন্দা শেখ শামিম

এরপর বর্ধমান শহরে এসে তারা মুসলিম মত অনুযায়ী বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বর্ধমানে তারা একই সঙ্গে বসবাস করছিলেন। গত ২৪ জুন ন্যশনাল অ্যান্টি ট্রাফিকিং কমিটির চেয়ারম্যানের করা অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ শেখ শামিমের বাড়িতে হানা দেয় এবং নূরতাজ আখতার মিমের পাসপোর্ট ও ভিসা ডক্যুমেন্ট চায়। পুলিশকে প্রজাতান্ত্রিক বাংলাদেশের ইস্যু করা একটি জন্ম সার্টিফিকেট দিলেও অন্য কোন বৈধ কাগজপত্র দিতে না পারায় পুলিশ দুজনকেই রবিবার গ্রেফতার করে।

- Advertisement -

ন্যাশনাল অ্যান্টি ট্রাফিকিং কমিটির চেয়ারম্যান শেখ জিন্নার আলি দাবি করেছেন, তাঁদের কাছে খবর এসেছিল বাংলাদেশ থেকে কয়েকজন মহিলাকে বিক্রি করা হয়েছে। নূরতাজ আকতার মিম ও নাদি আকতার বর্ধমান শহরে আছে, জানতে পেরে সেটা বর্ধমান থানায় লিখিতভাবে জানান তাঁরা। বর্ধমান থানার পুলিশ নূরতাজ আকতার মিমকে উদ্ধার করলেও আর একজনের সন্ধান পায়নি।

গ্রেপ্তারের পর ধৃত প্রেমিক-প্রেমিকা প্রেমের গল্পের কথা শোনালেও তা বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে করছেন না তদন্তকারীরা। নেপথ্যে অন্য কোনও কারণ রয়েছে কি না, তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। রবিবার তাদের বর্ধমান আদালতে পেশ করে বর্ধমান থানার পুলিশ। বিচারক ধৃতদের বিচারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। ধৃত বাংলাদেশি যুবতী নূরতাজের বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়ে বাংলাদেশের হাই কমিশনারের মাধ্যমে তাঁর দেশে খবর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

- Advertisement -
Sk Sahiluddin
Sk Sahiluddinhttps://www.thestreetpress.com
Sk Sahiluddin is a seasoned journalist and media professional with a passion for delivering accurate and impactful news coverage to a global audience. As the Editor of TSP Bangla, he plays a pivotal role in shaping the editorial direction and ensuring the highest journalistic standards are upheld.
আরও পড়ুন
- Advertisment -

জনপ্রিয় খবর